তিতাসের কলাকান্দি ইউনিয়নের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের অগ্রিম ঈদের শুভেচ্ছা-মো. ইব্রাহিম সরকার 

  •  
  •  
  •  
  •  

এস এ ডিউক ভূঁইয়া-
তিতাস(কুমিল্লা)প্রতিনিধিঃ
 কুমিল্লার তিতাস উপজেলার ৫ নং কলাকান্দি ইউনিয়নের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে অগ্রিম ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উপজেলা যুবলীগ নেতা মো.ইব্রাহিম সরকার।আসন্ন ৫ নং কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো.ইব্রাহিম সরকার এক বার্তায় বলেন,দীর্ঘ এক মাসের সিয়াম সাধনার পর বাংলাদেশে ঈদুল ফিতর আসে খুশির বার্তা নিয়ে।ঈদের চাঁদ দেখা দেওয়ার পর জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের এই গান রেডিও,টেলিভিশনে সম্প্রচার শুরু হওয়া মানে চাঁদ রাতেই ঈদের খুশি,আনন্দ শুরু হওয়া।চাঁদ দেখার পরপরই সঙ্গে সাক্ষাৎ,ফোনে ঈদের শুভেচ্ছা বিতরণ শুরু করেন মুসলমান ভাই ও বোনেরা।এক মাস সিয়াম সাধনার পর আবার সেই পবিত্র ঈদুল ফিতর ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের ঘরে-ঘরে আনন্দের সুবার্তা পৌঁছে যাবে।আর এই ঈদকে সামনে রেখে উপজেলার ৫ নং কলাকান্দি ইউনিয়নের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে অগ্রিম ঈদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন উপজেলা যুবলীগ নেতা মো.ইব্রাহিম সরকার।তিনি বলেন,প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে বিশ্বব্যাপী মহামারী দেখা দেওয়ায় ঘরবন্দি জীবনে উৎসবে যেনো সেই প্রাণটাই আজ বড় শুকনো,বিবর্ণ। তারপরও আজ মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসবের দিন পবিত্র এই ঈদুল ফিতর।জনাব ইব্রাহিম সরকার আরও বলেন,
আপনাদের-আমাদের জীবনকে মহান আল্লা হতায়ালা পূর্ণতা দান করুণ,এই দোয়া করি।পবিত্র ঈদুল ফিতর সবার জীবনে বয়ে আনুক অনাবিল সুখ,শান্তি ও সমৃদ্ধি।’ ‘এবছরেও ঈদ একবারে আলাদা আর ভিন্নভাবে সবাই পালন করবে।পারিবারিক ও সামাজিক বন্ধন বেড়েছে,আর কমে গেছে সামাজিকভাবে বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াত।বছরের প্রতিটি দিন ঈদের দিনের মতো আনন্দময় হোক-এই শুভ প্রত্যয়ে আবারও “ঈদ মোবারক।” সেই সাথে প্রাণঘাতি মহামারী করোনার ভাইরাসের ভয়াল থাবা থেকে বাঁচার জন্য স্বাস্থবিধি মেনে চলবেন।এবং সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখবেন।কলাকান্দি ইউনিয়নের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে জানাই “ঈদ মোবারক” ইব্রাহিম সরকার।

  •  
  •  
  •  
  •