জনগণকে ভালোবাসা দিয়ে সেবা করতে হবে:মুরাদনগর সার্কেল মীর আবিদুর রহমান

এস এ ডিউক ভূঁইয়া-
তিতাস(কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লার মুরাদনগর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান বলেন,
জনগণকে ভালোবাসা ও সর্বোচ্চ সম্মান দিয়ে সেবা করতে হবে।বাংলাদেশের জনগণ পুলিশ বাহিনীর উপর অনেক আস্থাশীল,তাই এই পুলিশ বাহিনী নিয়ে দেশের মানুষ অনেক স্বপ্ন দেখেন।১ আগস্ট রবিবার কুমিল্লার মুরাদনগর থানায় অন্যান্য অফিসারদের সাথে দায়িত্বপালনকালে তিনি একথা বলেন।তিনি অফিসার
দের উদ্দেশ্যে আরও বলেন,
বিচ্ছিন্ন ভাবে কাজ করলে সে কাজে কোন সফলতা আসে না,যদি সফলতা আসে তাহলে সেটা অনেক দেরিতে।তাই একত্রিত হয়ে আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে।সকল ভেদাভেদ ভুলে মানুষের সেবায় এগিয়ে আসতে হবে।বাঙালি জাতির শোকের মাস উপলক্ষ্য একান্ত আলাপকালে তিনি বলেন,আমি আজকে একজন বড় পুলিশ অফিসার হয়ে সাধারণ জনগণের সাথে দাম্ভিকতা দেখাতে পাড়ি  না, কারণ সরকার আমাকে নিয়োগ দিয়েছেন সাধারণ জনগণের সুবিধা ও অসুবিধার কথা শুনার জন্য।আমাদের মাননীয় পুলিশের আইজি ড.বেনজির আহম্মেদ স্যার চাচ্ছেন ইংল্যান্ডের পুলিশের মত করে আমাদের বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীকেও আধুনিক পুলিশ হিসাবে গড়ে তুলতে।মীর আবিদুর রহমান আরও বলেন,আমার মুরাদনগর সার্কেলের আওতায় তিনটি থানা আছে, তিতাস,বাঙ্গরা বাজার ও মুরাদনগর।এই তিনটি থানার অফিসার ইনচার্জগণ দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।আমি এর জন্য তাঁদেরকে ধন্যবাদ জানাই।আমার পরিস্কার বার্তা কোন পুলিশ সদস্য যদি সাধারণ জনগণের সাথে থানায় কোন প্রকার বিমাতাসুলভ আচরণ করেন,তাহলে তাদের বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। কারণ কেউ আইনের উর্ধ্বে নয়।তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন,বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে হলে অবশ্যই সাধারণ জনগণ পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে হবে।আপনার নিকট যদি থানার ফোন নাম্বার না থাকে তাহলে অবশ্যই ৯৯৯ ফোন দিয়ে সহযোগিতা নিতে পারবেন। আপনার এলাকার যে কোন অপরাধের তথ্য আমাদেরকে দিন,আমরা আপনার নাম গোপন রাখবো।অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করবো।